মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন সেনা বাড়াতে ১০০কোটি ডলার দিয়েছে সৌদি: ট্রাম্প

0
107

উত্তেজনার প্রেক্ষিতে মধ্যপ্রাচ্যে অতিরিক্ত মার্কিন সেনা পাঠানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার পরিশোধ করেছে তাদের মিত্র সৌদি আরব। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একথা বলেছেন।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট মনিটর মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ফক্স নিউজের বরাতে এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

মিডল ইস্ট মনিটরের প্রতিবেদন অনুযায়ী, মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল ফক্স নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অঞ্চলটিতে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন প্রসঙ্গে বলেন, ‘সৌদি আরব আমাদেরকে (আমাদের সেনার জন্য) অর্থ পরিশোধ করেছে। এছাড়া আমাদের (যুক্তরাষ্ট্রের) সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্কও খুব ভালো।’

ট্রাম্প আরও জানান, ‘আমি বলেছি, শুনুন, আপনারা খুবই ধনী দেশ। আপনারা কি আরও সৈন্য চান? যদি চান তাহলে আমি আপনাদেরকে তা (সেনা) পাঠাবো কিন্তু আপনাদের এর জন্য অর্থ পরিশোধ করতে হবে। তারা আমাদের অর্থ পরিশোধ করেছে। ইতোমধ্যে আমাদের নামে ব্যাংবে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার জমা হয়েছে।’

গত বছরের অক্টোবরে মার্কিন প্রতিরক্ষা সদর দপ্তর পেন্টাগন জানায়, সৌদি আরবে অতিরিক্ত ৩ হাজার মার্কিন সেনা ও সামরিক সরঞ্জাম পাঠানোর ব্যাপারে অনুমোদন দিয়েছে তারা। গত সেপ্টেম্বরে সৌদির রাষ্ট্রায়ত্ত তেল কোম্পানি আরামকোতে ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীদের হামলাকে কারণ হিসেবে জানায় তারা।

সৌদি আরবে পাঠানো সামরিক সরঞ্জামের মধ্যে প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র, যুদ্ধবিমান ও থাড ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাও ছিল। ট্রাম্প বারবার বলে আসছেন, মার্কিন সুরক্ষা নিতে হলে তিনি অন্য দেশগুলোতে অর্থ পরিশোধে বাধ্য করবেন। বিশেষ করে পারস্য উপসাগরের ক্ষেত্রে।

উল্লেখ্য, ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর সৌদি আরবের সঙ্গে ইরানের উত্তেজনা বৃদ্ধি ও যুদ্ধাবস্থার তৈরি হয়। তার প্রেক্ষিতে মধ্যপ্রাচ্যে এমনকি সৌদি আরবেও তার প্রশাসন অতিরিক্ত সেনা ও সামরিক সরঞ্জাম পাঠায়।

তবে ট্রাম্প মধ্যপ্রাচ্য থেকে মার্কিন সেনাদের বের করে আনার ঘোষণাও দিয়েছিলেন।

watch price in bangladesh

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here