ক্রিকেট নিষিদ্ধ হচ্ছে দিল্লিতে!

0
98

এই মুহূর্তে দিল্লিতে চলছে ভারত-শ্রীলঙ্কা তৃতীয় টেস্ট। যেখানে খেলতে গিয়ে দূষণে বিধ্বস্ত শ্রীলঙ্কার খেলোয়াড়রা। যার ফলে টেস্ট ম্যাচ হারাতে পারে দিল্লি। যা খবর তাতে আগামী ২০২০ পর্যন্ত কোনো টেস্ট ম্যাচ পাবে না দিল্লি। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই-এর রোটেশন পদ্ধতিতে এমনিতেও এখনই ফিরোজ শাহ কোটলার কোনও আন্তর্জাতিক ম্যাচ পাওয়ার কথা নেই।

আন্তর্জাতিক খেলার ভেন্যু হিসেবে দিল্লি নিয়ে ইতিমধ্যে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। এর মধ্যেই কোনো রকমে হয়েছে ম্যারাথন। চলছে টেস্ট ম্যাচও। ম্যারাথন হলেও টেস্ট ম্যাচের সঙ্গে সঙ্গেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। প্রথম দিন থেকেই শ্বাসকষ্টের অভিযোগ জানিয়েছে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটাররা। অ্যান্টি পলিউশন মাস্ক পরে খেলতে হচ্ছে ক্রিকেটারদের।

বিসিসিআই-এর পক্ষ থেকে এক কর্তা বলেন, রোটেশন পদ্ধতিতে ইতিমধ্যে একটি ওয়ান ডে নভেম্বরে ও একটি টেস্ট পেয়ে গেছে দিল্লি। পরবর্তী সিরিজে দিল্লির জায়গা পাওয়ার কোনো জায়গা নেই। অন্য ভেন্যুরাও অপেক্ষায় রয়েছে।’’

ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন দূষণের জন্য দিল্লি ম্যারাথন বাতিল করার উপদেশ দিয়েছিল। কিন্তু আয়োজকরা বিপুল ক্ষতি হয়ে যাবে ভেবে তার মধ্যেই আয়োজন করে। তার পরই শুরু হয় এই টেস্ট ম্যাচ। দূষণের জন্য দ্বিতীয় দিন ২৬ মিনিট খেলাও বন্ধ থাকে।

বিসিসিআই-এর কার্যনির্বাহী সচিব অমিতাভ চৌধুরী সোমবার স্বীকার করে নিয়েছিলেন, এই ঘটনার পর এই সময়ে দিল্লিতে টেস্ট দেয়া নিয়ে অবশ্যই ভাবনা-চিন্তা করা হবে। যদিও কোটলার ২০২০ পর্যন্ত ম্যাচ না পাওয়ার কারণ হিসেবে রোটেশন পদ্ধতিকেই সামনে রাখছে বিসিসিআই। যদিও নেপথ্যে ঘুরছে দূষণের জন্য শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের প্লেয়ারদের অসুস্থতা।

দিল্লি দূষণের শিকার শামিও

এ বার দিল্লির দূষণের শিকার ভারতের ক্রিকেটাররাও। মঙ্গলবার সকালে মাঠের মধ্যেই বমি করে মাঠ ছেড়েছিলেন শ্রীলঙ্কার সুরঙ্গনা লাকমল। একইভাবে অসুস্থ হতে দেখা গিয়েছিল লাহিরু গ্যামেজকেও। টেস্টের শুরু থেকে শ্রীলঙ্কা দলের পক্ষ থেকে বার বারই সে কথা বলা হয়েছে।

এ বার মাঠের মধ্যে অসুস্থ হয়ে বমি করে ফেললেন ভারতীয় দলের পশ্চিমবঙ্গের পেসার মুহম্মদ শামিও। আগের দিনই তিনি বলেছিলেন, ‘‘এই দূষণের সঙ্গে আমরা অনেকটাই অভ্যস্ত তাই আমাদের অতটা সমস্যা হচ্ছে না।’’ কিন্তু টানা চার দিন দিল্লির ওই আবহাওয়ার মধ্যে খেলে অসুস্থ হয়ে পড়লেন তিনিও।

তিনি আর মাঠে ফেরেননি। যদিও শিখর ধবন জানিয়েছেন বুধবার খেলবেন শামি। তিন ওভার বল করার পরই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। লাকমল ফিরলেও শামি আর মাঠে নামেননি। ফিজিওর সঙ্গে কথা বলার পরই তাকে মাঠ থেকে তুলে নেয়া হয়। আর এক দিনের খেলা বাকি। দিনের প্রথমার্ধের মধ্যেই ম্যাচ শেষ করে দিতে চাইছে ভারত।

চতুর্থ দিন এক উইকেট হাতে নিয়ে ব্যাট করতে নেমেছিল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু দিনের শুরুতেই টানা লড়াই দেয়া অধিনায়ক চান্দিমল প্যাভেলিয়নে ফিরে যেতেই শেষ হয়ে যায় শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংস। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৫২.২ ওভার খেলে ভারত ইনিংস ঘোষণা করে ২৪৬/৫এ। শিখর ধবনের ৬৭, বিরাট কোহালির ৫০ ও রোহিত শর্মার অপরাজিত ৫০ রানের ইনিংসের সৌজন্যে শ্রীলঙ্কার সামনে বড় রানের টার্গেট রেখেই থামে ভারত।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দিনের শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে সমস্যায় শ্রীলঙ্কা। ইতিমধ্যেই প্যাভেলিয়নে ফিরে গেছেন করুনারত্নে, সমারাবিক্রমা ও লকমল। পঞ্চম দিনের শুরুতে ব্যাট হাতে নামবেন ডি সিলভা ও ম্যাথুস।

ভারতের হয়ে প্রথম ইনিংসে তিনটি করে উইকেট নিয়েছেন ইশান্ত শর্মা ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন, দুটো করে উইকেট মহম্মদ শামি ও রবীন্দ্র জাডেজার। দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতের হয়ে এ দিন জোড়া উইকেট নেন রবীন্দ্র জাডেজা। একটি উইকেট ইশান্ত শর্মার। শেষ দিন শ্রীলঙ্কার সামনে টার্গেট ৩৭৯ রান। রাতে রয়েছে ৭ উইকেট।

ভারতগামী লংকান ওডিআই দলকে থামিয়ে দিলেন মন্ত্রী
দল নির্বাচনে সন্তস্ট না হওয়ায় ওডিআই ম্যাচ খেলতে নির্বাচিত ৯ লঙ্কান ক্রিকেটারকে ভারতের উদ্দেশ্যে যাত্রার আগমুহূর্তে থামিয়ে দিয়েছেন দেশটির ক্রীড়া মন্ত্রী দয়াসিরি জয়াসেকারা।

সোমবার রাতের ফ্লাইটে ভারতে যাবার লক্ষ্যে ওই নয় খেলোয়াড় বিমান বন্দরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করার পরই তাদেরকে আবার ফিরে আসার নির্দেশ দেন মন্ত্রী। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক খেলোয়াড় বার্তা সংস্থা এএফপিকে এ তথ্য দিয়েছেন।
লংকান ওডিআই দলের বাকী খেলোয়াড়রা বর্তমানে ভারতে টেস্ট সিরিজে অংশ নিচ্ছেন। চলতি বছর শ্রীলঙ্কার জাতীয় ক্রিকেট দল ২১টি ওডিআই ম্যাচে পরাজিত হয়েছে। এ সময় তারা জয় পেয়েছে মাত্র চারটি ম্যাচে।

এদিকে ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সুত্রে বলা হয়েছে নির্বাচিত দলকে মন্ত্রী আনুষ্ঠানিক অনমোদন দেয়ার আগেই খেলোয়াড়দের ভারত যাবার জন্য পাঠানো হয়েছিল।

watch price in bangladesh

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here