চাল নিয়ে নয়ছয়, আওয়ামী লীগ নেতাকে প্রকাশ্যে গণথাপ্পড়!

0
8

ভিজিএফের চাল বিতরণে অনিয়ম ও কম দেওয়ায় এবার প্রকাশ্যে চড়-থাপ্পড় খেলেন আওয়ামী লীগ নেতা। তিনি পটুয়াখালীর ২ নম্বর মির্জাগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তার নাম আবদুল সাত্তার হাওলাদার।

বৃহস্পতিবার (৮ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার সুবিদখালী গোডাউনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, সকাল থেকে মির্জাগঞ্জ ইউনিয়নের মোট ১ হাজার ৪৪৪ জনকে চাল দেওয়া হয়। প্রত্যেককে ১৫ কেজি করে চাল দেওয়া কথা ছিল। কিন্তু আবদুল সাত্তার জনপ্রতি ১১ থেকে ১২ কেজি করে চাল দেন। পরে তিনি প্রতি চারজনকে ৫০ কেজি ওজনের এক বস্তা করে চাল নিতে বলেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উপস্থিত লোকজন ওই নেতা ও তার লোকজনকে চড়-থাপ্পড় দিয়ে লাঞ্ছিত করেন।

এ বিষয়ে আবদুল সাত্তার হাওলাদার বলেন, ‘চাল বিতরণ নিয়ে কিছু হয়নি। দলের কিছু লোকজন চাল আগে নেবে বলে ঠেলাঠেলি করেছিলেন।’

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ইউপি সদস্য জানান, চেয়ারম্যান নামের তালিকা দিলেও ঠিকমতো ভিজিএফের চাল বিতরণ করেননি আবদুল সাত্তার। এতে জনতা তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে।

ইউপি চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. মনিরুল ইসলাম লিটন সিকদার ভিজিএফের চাল কম দেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, ‘আমরা সঠিকভাবে চাল বিতরণ করেছি। গুদাম থেকে আনার সময়ে চালে কিছুটা ঘাটতি হয়। চাল বিতরণের সময় ওই আওয়ামী লীগ নেতার সঙ্গে সুবিধাভোগীদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হয়। এতে ঘটনাটি ঘটে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সরোয়ার হোসেন বলেন, ‘ভিজিএফের চাল ওজনে কম দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। এ রকম হওয়ার কথা নয়। তবে যেহেতু হয়েছে, ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here