আমার একটা বয়স্ক ভাতার কার্ড খুবই প্রয়োজন: আবেদ আলী

0
115

শেরপুরের শ্রীবরদীতে বয়স্ক ভাতা কার্ডের জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন নব্বই ছুঁই ছুঁই এক বৃদ্ধ। বয়সের ভারে ন্যুয়ে পরা ওই বৃদ্ধের নাম আবেদ আলী (৮৮)। তিনি শ্রীবরদী উপজেলার গোশাইপুর ইউনিয়নের গোশাইপুর গ্রামের মৃত তমির আলীর ছেলে। সহায় সম্পত্তি বলতে এক চিলতে পৈত্রিক ভিটেতে ঘর তৈরী করে কোন রকম মাথা গোজার ঠাঁই করে নিয়েছেন তিনি। সেখানেই তিনি স্ত্রী- সন্তান নিয়ে বসবাস করছেন। বর্তমানে শরীরে শক্তি না থাকায় লাঠিতে ভর করে মানুষের দুয়ারে দুয়ারে ভিক্ষাবৃত্তি করে স্ত্রী, এক মেয়েসহ নাতি-নাতনী নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন বৃদ্ধ আবেদ আলী। ব্যাক্তিগত জীবনে তিনি ৩ মেয়ে সন্তানের জনক। মেয়েদের বিয়ে দিয়েছেন। ২ মেয়ে স্বামীর সংসারেই থাকেন নিজেদের মত করে। তবে ছোট মেয়ে মালেহার স্বামী মারা গেছে কয়েক বছর আগে। স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে ২ মেয়ে ও ১ ছেলে নিয়ে বাবা আবেদ আলীর সংসারেই থাকেন। এ যেন মরার উপর খারার ঘা। অশ্রুশিক্ত চোখে বৃদ্ধ আবেদ আলী বলেন, আমার একটা বয়স্ক ভাতার কার্ড খুবই প্রয়োজন। এ বয়সে আর কত বাড়ী বাড়ী ঘুরে বেড়াবো, ওই একটি কার্ডের জন্য। আপনারা এর একটা বিহিত করে দিলে আমি খুব উপকৃত হতাম।

watch price in bangladesh

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here