বঙ্গবন্ধুর বাড়িতে অঞ্জন দত্ত, কাঁদলেন লিখলেন গানও

0
119

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাড়িতে এসে তার রক্তেভেজা সিঁড়ি আর বুলেটের চিহ্ন দেখে আবেগতাড়িত হয়ে কাঁদলেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সংগীতশিল্পী অঞ্জন দত্ত। বাঙালি জাতির মুক্তির কাণ্ডারিকে নিয়ে গানও লিখে ফেললেন তিনি। শুক্রবার সকালে ঢাকায় নেমেই ধানমন্ডির ৩২ নম্বর রোডে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক বাড়িটি দেখতে যান তিনি। প্রায় ঘণ্টাখানেক ধরে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের স্মৃতিবিজড়িত বাড়িটি ঘুরে দেখেন ‘বেলা বোস’খ্যাত এ সংগীতশিল্পী।

বিকেলে রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট প্রাক্তনী সংসদের আয়োজনে সিনেমা আড্ডায় বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও তার স্মৃতিবিজড়িত বাড়ি নিয়ে নিজের অনুভূতির কথা দর্শকদের জানালেন অঞ্জন দত্ত।

তিনি বলেন, ‘সকালে ঢাকায় নেমেই ইচ্ছা হলো উনার বাড়িটা দেখি। সেখানে আমি এক ঘণ্টা ছিলাম; এর মধ্যেই একটা গান লিখে ফেলেছি। ওখানে বসে আমি কাঁদলাম আর গান লিখলাম। ওখানে গেলে না, কেমন যেন লাগে; অদ্ভুত লাগে। সিঁড়ি দিয়ে উনি (বঙ্গবন্ধু) নেমে এসেছিলেন; ওখানে (ঘাতকরা) গুলি করেছিল; ওখানে গুলির দাগ লেগে আছে। ছেলের (শেখ রাসেল) বয়স ছিল মাত্র দশ বছর।’

বঙ্গবন্ধুর বাড়িতে গিয়ে কোনো পরিকল্পনা ছাড়াই গানটি লিখে ফেলেন বলে জানান তিনি। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই সুর তুলে পরিবেশন করেছেন মঞ্চেও। অঞ্জন দত্ত বলেন, ‘এটা (গান) বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ থেকে আসেনি, সেই ঘরটার মধ্যে দাঁড়িয়ে ভেবেছিলাম ওহ গড, কী হয়েছিল এখানে! এইটা (ঘর) থেকেই বেরিয়ে এলো গানটা।’ তার ধারণা গানটি ‘হিট’ করবে। কারণ হিসেবে বলেন, ‘এটার মধ্যে আমার সময়, আমার দেশ- এই ব্যাপারটা থাকছে।’

সিনেমা আড্ডায় সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ম. হামিদ, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউটের শিক্ষক সাজ্জাদ জহির, ঢাকা চলচ্চিত্র উৎসবের পরিচালক আহমেদ মুজতবা জামালসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

watch price in bangladesh

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here