বাসা ভাড়া নেবেন না এই মালিকেরা

0
73

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রকোপ পড়ছে বাংলাদেশেও। দেশের সব স্থানের জনসমাগম কমিয়ে ফেলার নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ সবধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। সব ধরণের ধর্মীয়, সামাজিক অনুষ্ঠানের উপরেও দেয়া হয়েছে নিষেধাজ্ঞা। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে ভ্রমণ স্থানগুলোও।

অর্থনীতির উপরেও প্রভাব ফেলতে শুরু করেছে এই মহামারি করোনাভাইরাস। কর্মহীন হয়ে পড়ছে মানুষ।

এমন পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে ভাড়াটিয়ার কাছ থেকে বাসা ভাড়া না নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকার দুই বাড়ির মালিক।

এদের মধ্যে একজন হাজারিবাগ বেড়িবাধ এলাকার বাড়ির মালিক অন্যজন জুরাইনের।

হাজারিবাগ বেড়িবাধ এলাকার বাড়ির মালিক মহিব রহমান তার ফেসবুক আইডিতে দুই মাসের (মার্চ-এপ্রিল) বাড়িভাড়া মওকুফের নোটিশের একটি ছবি দিয়ে লিখেছেন, “আমাদের হাজারিবাগ বেড়িবাধ এলাকার বাসায়, যেখানে নিম্নবিত্তরা ভাড়া থাকেন তাদের জন্য আজকে কিছু করার চেষ্টা করলাম। আইডিয়াটা ইন্টারনেট থেকে পাওয়া। আমরা সবাই কি এধরনের শো অফ করতে পারি না??”

#শোঅফ #পোস্ট

আমাদের হাজারিবাগ বেড়িবাধ এলাকার বাসায়, যেখানে নিম্নবিত্তরা ভাড়া থাকেন তাদের জন্য আজকে কিছু করার চেষ্টা করলাম।
আইডিয়াটা ইন্টারনেট থেকে পাওয়া।
আমরা সবাই কি এধরনের শো অফ করতে পারি না??

অন্যদিকে জুরাইন এলাকার বাড়ির মালিক শেখ শিউলী হাবিব বলেন, ‘করোনাভাইরাসের কবলে পড়ে সারা পৃথিবী এখন থমকে গেছে। এইটা থামাতে আমাদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে যতটা সম্ভব কিছু করা উচিত। আমার ভাড়াটিয়ারা অনেকটা দিনমজুর। তারা দিন আনে দিন খায়। করোনার কারণে মানুষ সব ঘরবন্দি হয়ে যাচ্ছে, তাদের কাজও কমে গেছে। এখন তারা নিজেরা খাবে নাকি আমাকে বাসার ভাড়া দিবে? এসব ভেবেই আমি তাদের জন্য মার্চ মাসের ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘আমার বাবা শেখ মোবারক হোসেন একজন মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। তার কাছ থেকেই মানুষের প্রতি দায়িত্ববোধ শিখেছি। গত কয়েকদিন ধরেই ভাবছিলাম, আমি আমার অবস্থান থেকে কী করতে পারি? আমি নিজেও মধ্যবিত্ত মানুষ। উচ্চবিত্তদের প্রচুর টাকা আছে, তাদের অভাব হবে না। কিন্তু মধ্যবিত্তের সংকট বেশি। তারপরও আমি এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি প্রথমে চাইনি নিজের একটা সামান্য কাজ প্রচার করতে। তবে আমার স্বামীর পীড়াপীড়িতে এটা নিয়ে ফেসবুকে লিখেছি। আমার স্বামীর যুক্তি ছিল, এটা দেখে দেশের আরো অনেক বাড়ির মালিক উদ্বু্গ্ধ হবে। তারাও এগিয়ে আসবে ভাড়াটিয়াদের পাশে।’

watch price in bangladesh

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here