পুলিশ বাড়িতে রেখে এলো, পিটিয়ে মারল প্রতিপক্ষ

0
555

জমি-সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নুর মোহাম্মদ নুরু (৫৩) নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

রবিবার বিকালে ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলায় কুশমাইল ইউনিয়নের বরুকা উত্তরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নুর মোহাম্মদ উপজেলার কুশমাইল ইউনিয়নের বরুকা উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত রওশন আলীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, নুর মোহাম্মদের সঙ্গে তার জেঠাত ভাই আব্দুল কদ্দুছদের ৫-৬ বছর ধরে বসতভিটা নিয়ে বিরোধ চলছিল। এর জেরে প্রায় মাসখানেক আগে নুর মোহাম্মদকে হত্যার হুমকি দিয়ে বাড়ির মাঝখানে বেড়া দেয়। এতে নুরু মিয়া অবরুদ্ধ হয়ে বাড়ি ছেড়ে দেন এবং জমি সংক্রান্ত বিরোধের বিষয়ে মামলা করেন।

মাসখানেক পর রবিবার বিকালে থানা পুলিশের সহযোগিতায় বাড়িতে যান নুরু মিয়া। পুলিশ তার বাড়িতে গিয়ে দুই পক্ষকে মারামারি না করার পরামর্শ দিয়ে নুরু মিয়াকে বাড়িতে রেখে আসে।

পুলিশ চলে যাওয়ার পর নুর মোহাম্মদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় প্রতিপক্ষদের। নুর মোহাম্মদ কেন কদ্দুসদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে-এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এর এক পর্যায়ে তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত প্রতিপক্ষের লোকজন। পরে স্থানীয়রা ফুলবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে মারা যান তিনি।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মানিক কুমার দে বলেন, নুর মোহাম্মদ হাসপাতালে আনার আগেই মারা গেছেন। তার মাথা, ঘাড় ও পিঠে জখমের চিহ্ন রয়েছে।

ফুলবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিজুর রহমান বলেন, মারামারি না করতে প্রতিপক্ষকে বুঝিয়ে নুর মোহাম্মদকে বাড়িতে রেখে আসা হয়। কিন্তু পুলিশ আসার আধাঘণ্টার মধ্যেই নুর মোহাম্মদকে পিটিয়ে হত্যা করে প্রতিপক্ষরা। এ ঘটনায় হত্যা মামলার প্রক্রিয়া চলছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

watch price in bangladesh