ক্ষমতার দাপটে এমপি ফিরোজের ভাইয়ের কাণ্ড! ২৮ দোকানের সামনে তুলে দিলেন দেয়াল

0
198

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কালাইয়া লঞ্চঘাটে একটি মার্কেটের ২৮টি দোকানের শাটারের সামনে দেয়াল তোলা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার (০৮ জানুয়ারি) সকালে স্থানীয় সংসদ সদস্য (এমপি) আ স ম ফিরোজের ছোট ভাই ক্ষমতার অপব্যবহার করে এ কাজটি করেন।

এ ব্যাপারে এমপির ছোট ভাই এ কে এম ফরিদ মোল্লা বলেন, ‘লঞ্চঘাটের রাস্তার পশ্চিম পাশে যেখানে দেয়াল নির্মাণ হচ্ছে সেখানে আমাদের জমি রয়েছে। ওই জমিতে বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ করছি। কারো জায়গা বা মার্কেট দখল করে বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ করা হয়নি।’

সরেজমিন দেখা গেছে, কালাইয়া লঞ্চঘাটের অভিমুখে একটি সরকারি রাস্তার পশ্চিম পাশে হাজী শহিদ আলম নামের একটি মার্কেটের সম্মুখ ভাগের ফুটপাতের জায়গা দখল করে ইট দিয়ে দেয়াল নির্মাণ করা হচ্ছে। আট থেকে ১০ জন শ্রমিক কাজ করছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে মধ্য বয়সী এক নির্মাণ শ্রমিক বলেন, ‘এমপির ছোট ভাই ফরিদ মোল্লা আমাদের দ্বারা এ কাজ করাচ্ছেন।’ প্রায় একই ধরনের বক্তব্য আরো দুই নির্মাণ শ্রমিকের।

ওই মার্কেটের মালিক শহিদ আলম অভিযোগ করেন, তিনি কালাইয়া লঞ্চঘাটের অভিমুখে রাস্তার পশ্চিম পাশে ৬৫ শতাংশ জমি ক্রয়সূত্রে মালিক। রাস্তার পূর্ব পাশের ৬৫ শতাংশ জমির মালিক হলেন স্থানীয় এমপির স্ত্রী দেলোয়ারা রুনু। গতকাল শুক্রবার সকালে ফরিদ ইট দিয়ে দেয়াল নির্মাণ করে শহিদের দোকানগুলো বন্ধ করে দেন। এ সময় শহীদ বাধা দিলে ধমক দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে তাড়িয়ে দেন ফরিদ।

শহিদ আলম বলেন, ‘ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে ফরিদ সরকারি সড়কের পাশে আমার নিজস্ব সম্পত্তিতে নির্মিত বিপণিবিতানের সম্মুখে দেয়াল নির্মাণ করে সব স্টল বন্ধ করে দিয়েছে। প্রভাবশালী হওয়ায় প্রতিবাদ করে কোনো লাভ হচ্ছে না। কোথায় গিয়ে বিচার চাইব?’

এ ব্যাপারে বাউফল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, ‘বিষয়টি আমি শুনেছি। সরকারি রাস্তার পাশে দেয়াল নির্মাণ করে কারো যাতায়াতে বাধা কিংবা মার্কেটে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা অন্যায়। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

watch price in bangladesh