বিএনপিতে জামাতী অভ্যুত্থান

0
118

বিএনপিতে জামাতপন্থীদের অভ্যুত্থান ঘটেছে। ২০ দল অকার্যকর কেন, এবং বিএনপির দীর্ঘদিনের মিত্র জামাতকে সংগে নিয়ে বিএনপি কেন আন্দোলন করছেনা এবং জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আছে কি নেই-তা খোলাসা করতে বলেছেন বিএনপির শীর্ষ নেতারা। আর এনিয়ে অনতিবিলম্বে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠক ডাকতে বলা হয়েছে। বিএনপির জামাত বিরোধিরা এটাকে পরিকল্পিত এবং জামাতের প্ররোচনায় সংগঠিত ঘটনা বলে মনে করছে। দলের মহাসচিবের কাছে ২০ দলকে সক্রিয় করতে এবং জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে যারা বার্তা দিয়েছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন, ড: খন্দকার মোশারফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, মেজর (অব:) হাফিজ উদ্দিন।

২০১৮ সালের নির্বাচনের পর ২০ দলে টানা পোড়েন চলছে। আন্দালিব রহমান পার্থর নেতৃত্বাধীন বিজেপি সহ বেশ কয়েকটি দল ২০ দল থেকে বেরিয়ে যায়। গত দুবছরে জোটের বৈঠক হয়েছে মাত্র ২টি। স্থানীয় সরকার নির্বাচন ২০ দলীয় জোটগত ভাবে হচ্ছে না। ফলে, অধিকাংশ পৌরসভায় বিএনপি এবং জামাতের প্রার্থীরা ভোটে প্রার্থী হচ্ছে। এতে লাভবান হচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রার্থী। সম্প্রতি জামাতের পক্ষ থেকে সরকার বিরোধি আন্দোলনের জন্য তিনদফা প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। এই প্রস্তাবে আছে: ১. ঐক্যবদ্ধ ভাবে সরকার বিরোধি আন্দোলন গড়ে তোলা, ২. স্থানীয় সরকার নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধ ভাবে অংশ গ্রহন ৩. সরকার বিরোধি নূন্যতম কর্মসূচী গ্রহন। কিন্তু জামাতের এই লিখিত প্রস্তাবে সাড়া দেন নি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। মির্জা ফখরুল, ২০ দল নয় বরং জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে সক্রিয় করতে চান। মির্জা ফখরুল মনে করেন, জামাতের সঙ্গে প্রকাশ্য ঐক্য বিএনপির গ্রহনযোগ্যতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে। আর একারনেই, তিনি ২০ দলকে চাঙ্গা করতে অনাগ্রহী। সর্বশেষ ২০ দলীয় জোটের বৈঠকে (যেটি গত বছরের জানুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত হয়েছিল) তার সঙ্গে জামাত নেতার কথাকাটাকাটিও হয়েছিল। জামাত তাদের বৈঠকেও মূল্যায়ন করে স্থায়ী কমিটিতে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং নজরুল ইসলাম খান জামাত বিরোধি। এজন্যই বিএনপিকে জামাতের সঙ্গে রাখতে অন্য কৌশল নেয় যুদ্ধাপরাধে অভিযুক্ত দলটি। তারা বিএনপির বিভিন্ন নেতাকে দিয়ে একটি দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে। ঐ দোয়া মাহফিলের পর থেকেই ২০ দলকে পুনরুজ্জীবিত করার চাপ আসছে বিএনপির ভেতর থেকেই।

watch price in bangladesh

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here