তাদের টার্গেট ঘরমুখো মানুষ

1
78

সাম্প্রতিক সময়ে লকডাউন ও ঈদ উপলক্ষে বাড়িফেরা মানুষকে টার্গেট করে হাইওয়েতে এক শ্রেণির দুর্বৃত্তের আবির্ভাব হয়েছে। যারা বিভিন্ন ধরনের প্রাইভেট কার ও মাইক্রোবাস ভাড়া নিয়ে স্বাভাবিকের তুলনায় কম ভাড়ায় মোটামুটি অবস্থাপন্ন ব্যক্তিদের যাত্রী হিসেবে তুলে নেয়। তারপর  হাত পা বেঁধে চালায় শারীরিক নির্যাতন। পারিবারিক সক্ষমতা অনুযায়ী দাবি করে মুক্তিপণ। মুক্তিপণ বিকাশের মাধ্যমে পরিশোধ হলে তবেই মুক্তি মেলে এই সকল ঘটনার ভিকটিমদের। তাদের ফেলে দেওয়া হয় হাইওয়ের কোনও নির্জন স্থানে। এ ধরনের ঘটনা এড়াতে অননুমোদিত যানবাহন ও অপরিচিত কারও গাড়িতে ভ্রমণ না করার অনুরোধ করেছে পুলিশ।

সম্প্রতি এমনই এক ঘটনার ফারুক হোসেন(৪৩) নামে এক ব্যক্তি আসেন মানিকগঞ্জ থানায়। ফারুক হোসেন মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড এলাকা হতে রাজবাড়ি যাওয়ার উদ্দেশে একটি প্রাইভেট কারে উঠেন। উঠার পরপরই পাশের সিটে যাত্রীবেশে থাকা দুর্বৃত্তরা তার হাত পা বেঁধে মারধর শুরু করে দাবি করে লক্ষাধিক টাকার মুক্তিপণ। পৃথক দুটি বিকাশ নম্বরে ৫০,০০০ টাকা পরিশোধের পরই তার মুক্তি মেলে । গাবতলিতে তাকে নামিয়ে দেওয়া হয়। অভিযোগের পরই মামলা রুজু করে মানিকগঞ্জ থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় কয়েকজনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলো-  যশোরের অভয়নগর এলাকার আবুল বাশার, আলীম হোসেন শেখ) ও বাবর আলী বাবু।

তার প্রত্যেকই ঘটনার সঙ্গে সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। এছাড়াও তাদের হেফাজত থেকে ঘটনায় ব্যবহৃত প্রাইভেট কার, টাকা, স্টিলের পাইপ ও দড়ি উদ্ধার করা হয়। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ দেশের বিভিন্ন হাইওয়েতে এধরনের অপরাধ করছিল মর্মে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়।

মানিকগঞ্জ সদর সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ভাস্কর সাহা জানান, এ ধরনের ঘটনা এড়াতে অননুমোদিত যানবাহন ও অপরিচিত কারও গাড়িতে ভ্রমণ না কোর অনুরোধ করা হচ্ছে।

watch price in bangladesh

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here