এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে উদ্বিগ্ন ৪৪ লাখ শিক্ষার্থী

0
186
শিক্ষাপঞ্জি অনুযায়ী ইতোমধ্যেই পার হয়ে গেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার সময়। কিন্তু করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে বারবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসছে সরকার। তাই এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে উদ্বিগ্ন ৪৪ লাখ পরীক্ষার্থী। আর পরীক্ষা গ্রহণের জন্য সবধরনের প্রস্তুতি রয়েছে জানিয়ে শিক্ষাবোর্ড বলছে, সশরীরে নির্দিষ্ট সংখ্যক ক্লাস নিয়ে এসএসসি ও এইচএসসি নেওয়া হবে। করোনা সংক্রমণের পর গত বছরের মার্চ থেকে বন্ধ দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ৪ দফা খোলার ঘোষণা দিলে করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে তা সম্ভব হয়নি। শিক্ষাপঞ্জি অনুযায়ী ফেব্রুয়ারি ও মার্চে পার হয়ে গেছে মাধ্যমিক ঊচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা গ্রহণের সময়ও। কবে হবে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা? এই প্রশ্ন এখন ৪৪ লাখ পরীক্ষার্থীর।
ইতোমধ্যেই শিক্ষা মন্ত্রণালয় মূল সিলেবাসের ২৫ থেকে ৩০ শতাংশ রেখে সংক্ষিপ্ত করেছে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার সিলেবাস। আর সশরীরে ৩০ দিন ক্লাস নেওয়ার এসএসসি এবং ৮৪ দিন ক্লাস নেওয়ার পর এইচএসসি পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছে তারা। তাই দ্রুত সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে পরীক্ষা গ্রহণের দাবি পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের।
এদিকে এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন প্রণয়ন, পরিমার্জন, সংশোধন ও মুদ্রণের কাজ শেষ হয়েছে জানিয়ে আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সমন্বয় বলছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর সশরীরে নির্দিষ্ট সংখ্যক ক্লাস নিয়ে এসএসসি ও এইচএসসি নেওয়া হবে।
মাধ্যমিক-উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড ও আন্তঃশিক্ষাবোর্ডের সাব কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমদ বলেন, এসএসসির পরীক্ষার প্রশ্নপ্রত্রসহ সমস্ত কিছু তৈরি আছে। এইচএসসিটার প্রক্রিয়াধীন। আশা করি, খুব দ্রুতই এটি তৈরি হয়ে যাবে। আমরা পরীক্ষা নেওয়ার জন্য পুরোপুরি তৈরি আছি
পরীক্ষা কেন্দ্রে সামাজিক দূরত্ব রক্ষায় কেন্দ্রের পাশাপাশি উপকেন্দ্রেও পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা বোর্ড।
watch price in bangladesh