জেল বন্দিদের ‘খুন’ করাই নেশা!

0
69

সম্প্রতি ব্রাজিলে এক সিরিয়াল কিলারকে ২১৭ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। মার্কোস পাওলো ডা সিলভা নামের ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল তিনি কারাগারে থাকা ৪৮ জন কয়েদিকে হত্যা করেছেন।

মার্কোস সিলভা নিজেকে লুসিফার নামে পরিচয় দেন। ৪২ বছর বয়সী সিলভার ১৯৯৫ সালে চুরির দায়ে জেল হয়। তবে জেলখানায় এসে একের পর এক হত্যায় জড়িয়েছেন। তিনি দাবি করেছেন, যাদের তিনি খুন করেছেন তারা সকলেই চোর ও ধর্ষণকারী। ইউকে ভিত্তিক সংবাদ সংস্থা ডেইলি স্টার এই সংবাদ প্রকাশ করেছে।

সিলভা প্রতিটি ভিকটিমকে পেছন থেকে লোহার রড দিয়ে আঘাত করতেন। ভিকটিম জ্ঞান হারালে তারপর মাথা কেটে শরীর থেকে আলাদা করে ফেলতেন। কুখ্যাত এই ব্যক্তি সম্পর্কে আরও বলা হয়, তিনি ২০১১ সালে সাও পাওলোর কারাগারে ৫ জন কয়েদিকে হত্যা করেন। তাকে যখনই নতুন কোনো কারাগারে স্থানান্তর করা হতো, সেখানেই হত্যাকাণ্ড ঘটাতেন।

সিরিয়াল কিলিং সম্পর্কে আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে ডা সিলভা বলেন, আমি যাদের খুন করেছি তারা সবাই ধর্ষণকারী ও চোর ছিলো। তারা জেলের ভেতরে অন্যান্য বন্দীদের থেকে জোর করে জিনিসপত্র কেড়ে নিতেন। তাদের খুন করে আমার কোনো অনুশোচনা নেই। তিনি চিৎকার করে আরও বলেন, আমি এটা করে আনন্দ পাই। আমি আরও বহু বন্দীকে খুন করতে চাই।

সিলভা সম্পর্কে সাইকোলজিস্টদের মতামত, তিনি মানসিকভাবে অসুস্থ নন। তবে তিনি পার্সোনালিটি ডিসঅর্ডারে ভুগছেন, যার জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসা প্রয়োজন।

watch price in bangladesh

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here